বন্যা বাসীদের পাশে দাঁড়াতে সামাজিক সংগঠন “রেনেসাঁ” অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহে মাঠে নেমেছে।

0
11
বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি..হে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করুন..(আমিন)
বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি..হে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করুন..(আমিন)

মানুষ মানুষের জন্য। জীবন জীবনের জন্য। একটু সহানুভূতি মানুষ কি পেতে পারে না। সিডর ও আইলা দুর্যোগের সময় উত্তর বঙ্গের মানুষ আমাদের পাশে এসে দাড়িয়েছিল। এখন আমাদের সময় এসেছে বন্যা বাসীদের পাশে দাঁড়ানোর।

রেনেসাঁ

দুর্যোগকালীন সময়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দুর্যোগ মোকাবেলায় ঝাঁপিয়ে পড়া এএ দেশের মানুষের মজ্জাগত ব্যাপার। এবারের ভয়ংকর বন্যা মোকাবেলায়ও তার ব্যত্যয় ঘটেনি। বন্যা বাসীদের পাশে দাঁড়াতে সামাজিক সংগঠন ” রেনেসাঁ” অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহে মাঠে নেমেছে।

“মানবতার ডাক শুনুন, বন্যা বাসীদের পাশে আসুন”- স্লোগানকে সঙ্গী করে রেনেসাঁ’র স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ কড়া নাড়বে আপনার দরজায়। যারা এখনো বন্যা কবলিত হতভাগ্যদের সাথে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে পারেননি তারা আমাদের মাধ্যমে নগদ অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিতে পারেন।

আগামী ৫ সেপ্টম্বর পর্যন্ত চলবে আমাদের এই ত্রাণ সংগ্রহ অভিযান। ৮ ই সেপ্টম্বর আমরা ত্রাণসামগ্রী নিয়ে দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দিব ইনশাআল্লাহ। আপনাদের সাহায্য পৌঁছে দেয়াসহ সেখানে একটি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প করব আমরা। নিয়ে যাব প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র। দুর্যোগ মোকাবেলার এ লড়াইয়ে আসুন আবারও নিজেদের সম্বৃদ্ধ ইতিহাসকে স্মরণ করি।

বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি..হে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করুন..(আমিন)
বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি..হে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করুন..(আমিন)

আপনাদের সকলের অংশগ্রহনই এই লক্ষকে সামনে এগিয়ে নিতে সহযোগীতা করবে। দুর্যোগ মোকাবেলার এ লড়াইয়ে আসুন আবারও নিজেদের সম্বৃদ্ধ ইতিহাসকে স্মরণ করি।

হাজার হাজার বছর আগে হয় বন্যার মোকাবিলা
করেছে মনুষ আজ কেন মোরা এমন দিশেহারা?
অজ্ঞানী যা কিছু হাতে ব্যাবহারে করেছি ফয়সালা
আজ “প্রযুক্তি,জ্ঞান” অন্যের হাতে মোরা শুধু খেলা

আমি বন্যাকে ভূলতে চাইলেও বন্যা ছাড়ছে না,
ব্যাপারটি ধীরে ধীরে ভাবছি আত্মীক্ ভালবাসা,
শুধু মোর সাথে নয় হায়রে মোর প্রিয় ভারত বাসীকে করিবে সাহায্য মোরে ভারতও পানির দাসী।পৃথিবীর সব অনুন্নত দেশগুলোর একই ছলনায়
আত্ম বিশ্বাস হারিয়ে মস্তকটি ভাড়াটে চকরায়,

কাঁদো দেশ বাসী কাঁদো বিষয় বন্যা ও সালতামামি।
কাঁদো দেশ বাসী কাঁদো বিষয় বন্যা ও সালতামামি।

অশিক্ষা,শিক্ষিতরা বিদেশের হাতে,বিশ্বাস হীন
স্বনির্ভরতা ভূলে “ভাড়ায় মহিষ চড়ায়”সারা দিন।

বাংলা পানির নীচে বলে পাঠায় মোদের মসজিদে
আসামতো পাহারী দেশ ওখানে বন্যা গেল কিভাবে?
আসল কথা”নির্বুদ্ধিতা”বেঁচা কেনা হচ্ছে চরম দামে
চিন্তা,বিবেক বুদ্ধি বেঁচা-কেনা হচ্ছে সদর ঘাটে।

বন্যা মোদের ভূলের মাসুল সহজে সমাধান সম্ভব
যত বোকা হবে ততো বন্যা আসবে , এটাই বাস্তব
হল্যান্ড বলে “জলকে আপন করো” দেখাও রক্ষনে
তব প্লানে জলটি দেবে”নব্য জমি”তোমায় ফিরিয়ে।

পরিকল্পনায়: Khalid Sabbir, Prince Mahmud, Sifat Ahmed সহ আরও অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here